সর্বশেষ সংবাদ

বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

এই কি সেই স্বাধীনতা

এই কি সেই স্বাধীনতা


 





এই কি সেই স্বাধীনতা 

ওমর ফারুক 

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

যার জন্য 1947 সালে দেশ ভাগ হয় ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

 যার জন্য ভাষা শহীদের প্রাণ দিতে হয় ! 

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

  যার জন্য ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান  হয় ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

 যার জন্য সত্তরে নির্বাচন হয় ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

 যার জন্য 7-ই মার্চ –

    শেখ মজিবের স্বাধীনতার ডাক ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

 যার জন্য পঁচিশে মার্চ –

     বাংলার মানুষকে নরকের বলি হতে হয় ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

 যার জন্য বাংলার মানুষ –

      যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

  যার জন্য বাংলার মনসীদের –

       14 ডিসেম্বর নরকের শিকার হতে হয় ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

 যার জন্য 16 ডিসেম্বর বিজয় লাভ করি ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

 যার জন্য নারীদের সম্ভ্রম দিতে হয় –

    হারাতে হয় ভাই বোন স্বামী পুত্র আত্মীয় স্বজনকে ।

এই কি সেই স্বাধীনতা ?

 যার জন্য ত্রিশ লক্ষ মানুষ শহীদ হয় –

  বাংলা হয়ে যায় সড়ক বিছিন্ন ।

না-না –না এই  সেই স্বাধীনতা নয় ।

আজ ও বাংলা নারীদের ধর্ষন করা হয় –

   গোপনে কিংবা জন সম্মুখে ।

আজ ও নাবালিকার দেহ নিয়ে ,

 উল্লাস করে নর পশুরা ।

   আজ ও হারতাল অবরোধে –

মানুষ পুড়িয়ে মারে  ক্ষমতা লোভীরা  ।

আনন্দোলনের মুখে ছুটে মারে –

        বন্ধুকের গুলি ।

রাস্তায় পড়ে থাকে মানুষের লাশ ।

গ্রেরেফতার করা হয় –

  নিরাপদ মানুষকে ।

গুম খুন হতে হয় বুদ্ধিজীবিদরে ।

গণ কবর দিয়ে দেয় মিড়িয়ার অজান্তে ।

কন্ঠরোধ করা হয় ছাত্র জানতাকে ।

বিচারের নামে প্রহসন করা হয় ।

  ক্ষমতা দীর্ঘ আয়ু করতে কারফিউ জারি করা হয় ।

দোষের কিছু নয়

দোষের কিছু নয়


 






দোষের কিছু নয়

    ওমর ফারুক

ভালোর সাথে ভালো –

   আর মন্দের সাথে মন্দ –

দোষের কিছু নয় ।

রাগীর সাথে অভিমান ,

   দোষের কিছু নয় ।

ছলনার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা ,

  দোষের কিছু নয় ।

কৃপনের সাথে মিতব্যায়ী ,

দোষের কিছু নয় ।

  পরনিন্দাকারীর গীবত করা –

দোষের কিছু নয় ।

  ব্যাচালের সাথে প্যাচ করা –

দোষের কিছু নয় ।

 পন্ডীতের সাথে মাস্টারী করা –

দোষের কিছু নয় ।

মিথ্যাবাদীর সাথের অভিনয় করা ,

 দোষের কিছু নয় ।

হিংসুকের জন্য হিংসা করা ,

  দোষের কিছু নয় ।

মানুষের পরিচয় মনুসত্ব ।


যদি তোমায় শাস্তি দেওয়া হয়

যদি তোমায় শাস্তি দেওয়া হয়

 







যদি তোমায় শাস্তি দেওয়া হয় ।

 ওমর ফারুক

যদি মন ভাঙ্গার অপরাধে ,

তোমায় শাস্তি দেওয়া হয় –

তাহলে খোদার কাছে কি জবাব দেবে ।

যদি ছলনার অপরাধে ,

তোমায় শাস্তি দেওয়া হয় –

তাহলে খোদার কাছে কি জবাব দেবে ।

যদি মিথ্যা বলার অপরাধে ,

    তোমায় শাস্তি দেওয়া হয় –

তাহলে খোদার কাছে কি জবাব দেবে ।

যদি লোভের অপরাধে ,

তোমায় শাস্তি দেওয়া হয় –

তাহলে খোদার কাছে কি জবাব দেবে ।

যদি হিংসার অপরাধে ,

তোমায় শাস্তি দেওয়া হয় –

তাহলে খোদার কাছে কি জবাব দেবে ।

যদি কাউকে অপবাধ দেওয়ার অপরাধে,

তোমাকে শাস্তি দেওয়া হয় –

তাহলে খোদার কাছে কি জবাব দেবে

  যদি কাউকে গীবত করার অপরাধে ,

তোমায় শাস্তি দেওয়া হয় –

তাহলে খোদার কাছে কি জবাব দেবে ।

যদি স্বার্থপরতার তোমায় শাস্তি দেওয় হয় –

তাহলে খোদার কাছে কি জবাব দেবে


তোর কেন এত নাম

তোর কেন এত নাম


 







তোর কেন এত নাম

ওমর ফারুক

টাকা তোর কেন এত নাম ?

কোন দেশে ডলার কোন দেশে দিনার ,

 কোন দেশে রিয়েল ,রুপি ,দিনার দেরহাম ।

 তোর আবার উর্ধ্ধ গতি নিম্মগতি -

 তোর পিছে জ্ঞানী মর্খ সবি ।

 জন্মের পর তোর আগমন -

 মৃত্যুর পর তোকে প্রয়োজন ।

 জীবন মৃত্যু তোর হাতে ভাঙ্গা গড়া সবি ।

 বিয়েতে কাবিন লাগে কাজীর লাগে ফ্রি, 

 টাকা না থাকিলে মেয়ের বাবা বিয়ে দিবে কি ? 

 হুজুরদের দোয়া নিতে দিতে হয় হাদিয়া ,

 নইলে নরকে যাবে ভাসিয়া ।

 বৌ ছেলেমেয়ের হাত খরচ দিতে হয় টাকা ,

 নইলে জীবন তোমার হবে ফাঁকা ।

 টাকা হলো সুস্থ্য থাকার মহা ঔষুধ -

  ভোগো যদি অসুখে ,

  টাকা না থাকিলে ধুকে ধুকে মরিবে ।

  টাকা হলো লেখা পড়া স্কুল কলেজের ফ্রি 

  লেখা পড়া না শিখলে ভালো মন্দ বুঝবে কি ?

  টাকা হলো বিচার বুদ্ধি আদালতে লাগে

  টাকা থাকিলে লোকে সাপোর্ট করে ।

  টাকা হলো সরকারী ট্যাক্স জেল পরিমানা ।

  অধিক টাকা থাকিলে শত্রু দেয় হানা ।

  টাকা হলো ব্যাংক লোন সুদ জমানত কিস্তি -

   টাকা না থাকিলে জীবনে নেমে আসে নেস্তী ।

   টাকা হলে শ্রমিকের বেতন বোনাস -

   ঠিক মতো  না  দিলে পরিবারের সর্বনাশ ।

   টাকা হলো গাড়ি বাড়ি  রেষ্টুডেন্ট  মালিকের বিল ভাড়া ,

   ঠিক মতো পরিশোধ না করিলে সর্বহারা ।

   টাকা হলো ব্যাবসায়ীদের পুজি -

   লাভ কোন সানে মাথা ঠুকে মরি ।

   বাবুদের খুশির জন্য দিতে হয় ঘোস -

   নইলে তোমার কাজ করবে না কি কবি কছ ।

   আপোস বা জোর খাটালে টাকা হয়ে যায় চাদা ।

   টাকা ছাড়া যায় না ভালো থাকা ।

   টাকা হলো জামা কাপড় ঈদের সালামি ,

   কিনে না দিতে পারলে ধরে বড়ই হারামি ।

   বন্ধু বান্ধব আত্মীয়দের উপহারে দিতে হয় টাকা -

   নইলে সর্ম্পক ছিন্ন তোমার মস্ত বড় গাধা ।

   কালো টাকা সাদা টাকা -

    বৈধটাকা অবৈধ টাক ,

তুই ছাড়া জীবন আমার ফাঁকা ।

বোকা ছেলে

বোকা ছেলে

 











বোকা ছেলে 

              ওমর ফারুক 

বোকা বলে যে ছেলেকে করছো উপহাস ,

তারাই জগৎ জুড়ে মানবতার দাস ।

  বোকা বলে যে ছেলেকে করছো অবহেলা !

তোমার বিপদে ছুটে সকাল সন্ধ্যা বেলা ।

  বোকা বলে যাকে নিয়ে করছো ছিনিমিনি ,

বিশ্ব ভূবন তাদের কাছে ঋনী ।

  বোকা ছেলে বড়ই গাধা ,

সংসারের ধরে হাল ,

     নিঃশ্বার্থে সবি করে –

পিঠে থাকেনা ছাল ।

তোমার কথার মূল্য কচুপাতার পানি ।

বোকার কথার মূল্য অনেক  হীরামুক্তার খনি ,

বোকা বলে ধোকা খায় ,

   হয় না তাদের শিক্ষা ।

তাদের আছে ধর্য্য আর সহানুভূতির দীক্ষা ।

  বোকা মানুষ সহজ সরল –

      মনটা তাদের সাদা ।

দুষ্ট লোকে সুযোগ বুঝে –

  ছুটে মারে কাঁদা ।

    বোকা মানুষ উপকারী ,

ডাক দিলে দৌড়ে আছে ।

  অন্যের উপকার করতে এসে ,

    চোখের জলে ভাসে । 

বোকা হলো প্রকৃতির দান শ্রেষ্ঠ উপহার ,

 বোকার হাতে প্রকৃতির কল্যাণ ।

নাদুস নুদুস দেখতে যাদের –

তোমরা পছন্দ কর ।

  অপকর্ম অর্থের লোভে ,

    মাথা ঠুকে মরো ।

নাদুস নুদুস দেখতে যারা অতি ফ্যাশন করে ,

 সন্ত্রাস আর দূরনীতিতে পাপের সাম্রাজ্য গড়ে ।

এদের থেকে কি আশা করা যায় ?

 কি বা পাবে সমাজ ।

 অশ্লীলতা মদ খাজা দেশের সর্বনাশ ।

বোকারা ভাবে পরিবার সমাজ রাষ্ট্রের কথা ,

 তাদের আছে ন্যায় নীতি –

  তারাই বজায় রাখে বন্ধু  আত্মীয় স্বজন প্রীতি ।

  বোকা বলে যেই ছেলেকে-

      স্কুলে আসতে মানা করে ।

আলভা এডিসনের জীবনে এমন ঘটনা ঘটে ।

 লোকে যাকে বোকা বলে উপহাস করে ,

   আইনস্টাইনের জীবনে সর্বনাশ ।

যেই ছেলে হিসাব নিকাশ মনে নাহি রাখতে পারে ,

 সেই আবার র্নিভূল যন্ত্র ক্যালকুটার-

 কিভাবে আবিষ্কার করে ।

লোকে যাদের বোকা বলে রং তামাসা করে ,

 তারাই তো মানুষের স্বপ্ন পূরণ করে ।

দেখতে তারা বোকা হলে ও জ্ঞান বিজ্ঞানে নয় –

 কবি সাহিত্যিক সমাজ সেবক –

তারা ও কি বোকার মতো নয় ।

 বোকা বলে কাউকে করোনা গালমন্দ –

  বোকারা ও হতে পারে জগৎ শ্রেষ্ঠ ।

বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

 বাক যুদ্ধ

বাক যুদ্ধ







 বাক যুদ্ধ

ওমর ফারুক


তোমার সাথে আমার বাক যুদ্ধ হয়েছে বহুবার ,

আমি যতই বার সন্ধি চেয়েছি ,,

তুমি চাইলে রণক্ষেত্র ।

তুমি আমার আকাশ সীমানা লঙ্গণ করেছ বহুবার ,,

তোমার হ্নদয়ে বহন করা মিসাইল,,

আমার হ্নদয়ের ভূ-খন্ডে নিখুঁত ভাবে আঘাত করেছে ।

আমার মনের রাড়ারের নিস্তব্ধ কে,

তুমি অপব্যাবহার করেছো !

তোমার ট্যাংক ,কামান,রকেট লঞ্চার ,,

আমার হ্নদয়ের অরণ্যে ধ্বংশ করেছে ।

আমি যতই বার সন্ধি চেয়েছি ,,

তুমি চাইলে রণক্ষেত্র ।

তোমার গুপ্তচোর বৃদ্ধি ড্রোন গুলো,,

সফল ভাবে আমার হ্নদয়ের রাড়ার ফাঁকি দিয়েছে ।

তোমার হ্নদয়ের সীমানা ,

আমি যত বার প্রবেশ করার চেষ্টা করেছি,

তত বার তোমার মিসাইলের আঘাতে 

- নিজেকে বিধ্বস্ত করেছি ।

আমি যতই বার সন্ধি চেয়েছি ,,

তুমি চাইলে রণক্ষেত্র ।

তোমার হ্নদয়ের নৌবহরে যুক্ত ফ্রিগেট ,ডেস্ট্রয়ার ,

কর্ভেট,  ,সাবমেরিন  এয়ারক্রাফট ,,

নৌযুদ্ধে যে কোন সৈনিক অনাসে পরাজয় !

তোমার হন্দয়ের আকাশে উড্ডয়ন টাইফুন, মিগ 29 -

আকাশ পথে যে কোন বীরের হ্নদয়ে ভূকম্পন সৃষ্টি করে ।

তোমাকে আকাশ পথে স্থলে পথে নৌ পথে ,,

তোমাকে প্রতিরোধ করার সক্ষমতা আমার নাই ।

তোমার হ্নদয়ের আসনে সংরক্ষিত পরমাণু  অস্ত্রে ,,

আমি কখনো পরাজয় ছাড়া –বিজয় অর্জন করতে পারবো না ।

আমি যতই বার সন্ধি চেয়েছি ,,

তুমি চাইলে রণক্ষেত্র । 

বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আজ তোমার জন্ম দিন

আজ তোমার জন্ম দিন


 






আজ তোমার জন্ম দিন ,,
আকাশে ছিল রংধনু ,,
পাখিদের কিচির মিছির শব্দ ,,
প্রকৃতির অপরুপ সেজে ,,
রহ্যসের হাত ছানি দিয়ে তোমাকে ডাকছে !
আত্মীয় স্বজনদের এক মুঠো হাসি নিয়ে ,
তুমি এসেছিলে ।
আজ তোমার জন্ম দিন !
আজ রাখা হবে ,,
এক নবজাতকের নাম ,,
পৃথিবী জানবে এক নতুন ইতিহাস ,,
দেখাবে নতুন কিছু ,,
বিবর্তনের ছোঁয়া মানব সমাজে ,,
আজ তোমার জন্ম দিন !
তুমি হবে জ্ঞানী গুনি ,,
হয় তো বিজ্ঞানী ,,
আইনস্টান,নিউটন,আলভা এডিসন, র্চাজ ব্যাভেজ, ব্রাউন -
আজ তোমার জন্ম দিন ।
তুমি ঘটাবে সমাজিক বিপ্লব-
রবিন্দ্র,নজরুল,আব্রাহাম লিংকন ,কার্ল মার্ক,লেনিন-
শান্তির দূত আসবে নেমে নর দোর
আজ তোমার জন্ম দিন ।
কুসংষ্কারের প্রদীব তুমি বিদ্যাসাগার ,রামমোহন রায় -
দূর হবে অন্ধকার অজ্ঞতা সমাজ পাবে আশার আলো ,,
আজ তোমার জন্ম দিন ।
শুনাবে র্ধমের বাণী ,,
বৌদ্ধ,যিশু, মোহাম্মদ-
শুধরাবে মানব জাতী
আলো ছড়াবে এই ধরনীর বুকে !
আজ তোমার জন্ম দিন ।
তুমি হবে মহাবীর প্রলয়কারী,
খালিদ, ওমর ;হামজা, আলি ।
জালিমরা আতষ্কিত ,,
মজলুমের মুখে হাসি রাশি রাশি ,,
আজ তোমার জন্ম দিন ! !
মানবতা সমাজ সেবা নাগরিক দায়িত্ব ,,
নিয়ে নেবে তোমার ঘাড়ে ,,
আজ তোমার জন্ম দিন !
তুমি লিখবে গল্প কবিতা ছড়া উপন্যাস ,,
নজরুল ,রবিন্দ্রনাথ,জীবনানন্দ -শেক্সপিয়াস
মনের অজান্তে রংধনুর খেলা ।
আজ তোমার জন্ম দিন !!
তুমি হবে অকুতো বীর দূরসাহসী ,
তীতুমীরের বাঁশের কেল্লা
উড়াবে বিজয়ের নিশান –
যে নাবিক হারিয়েছে দিশা !
তুমি হবে মানব সেবা নিয়োজিত মাদার তেরেসা ,
তুমি হবে নারী শিক্ষার নক্ষত্র বেগম রোকেয়া ।
তুমি হবে কৃষক শ্রমিক মেহনতি মানুষের-
বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর মাওলানা ভাসানী ।
নিপীডিত মজলুম অসহায় অভাবী ,,
তোমার পানে চেয়ে আছে ,,
ধরনীর সব বোঝা তোমার কাধে ,,
আজ তোমার জন্ম দিন